দিল্লিতে ফের ট্যাক্সিতে গণধর্ষণের শিকার এক নারী

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ দিল্লিতে ফের চলন্ত ট্যাক্সিতে এক ট্যাক্সিচালক ও তার সঙ্গীর ধর্ষণের শিকার এক নারী। মাথায় বন্ধুক ঠেকিয়ে গণধর্ষণের পর সেই নারীর গয়না, টাকা, ফোন লুট করে নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে তাদের বিরুদ্ধে। গত মঙ্গলবার গভীর ঘটনাটি ঘটে দিল্লির গ্রেটার নয়ডায়।

নির্যাতিতা পুলিশকে জানান, রোহিনিতে যাওয়ার জন্য দিল্লির হজ খাস এলাকা থেকে একটি ট্যাক্সিতে ওঠেন তিনি। ধৌলা কুঁয়া থেকে ট্যাক্সিতে আরও এক ব্যক্তিকে গাড়িতে তোলে চালক। কিছু দূর এগোতেই হঠাত্ই গাড়ির মুখ ঘুরিয়ে গ্রেটার নয়ডার পারি চক এলাকায় একটি নির্জন জায়গায় নিয়ে যায় সে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই চালক এবং গাড়িতে থাকা ওই ব্যক্তি তাঁর মাথায় বন্দুক ঠেকিয়ে গণধর্ষণ করে। তার পরনের গয়না, ১২ হাজার টাকা এবং মোবাইল ফোন কেড়ে নেয় তারা। বুধবার ভোর ৫টায় কোনও রকমে নিজের বাড়িতে পৌঁছন মহিলা।

তারপরই তার পরিবার পুলিশকে গোটা বিষয়টি জানিয়ে অপহরণ এবং গণধর্ষণের মামলা দায়ের করেন ট্যাক্সিচালক ও তার সঙ্গীর বিরুদ্ধে। দিল্লি পুলিশের অ্যাডিশনাল ডিসিপি (দক্ষিণ) চিন্ময় বিসওয়াল বলেন, “হজ খাস থানায় একটি গণধর্ষণ ও ডাকাতির মামলা রুজু হয়েছে। অভিযুক্তদের চিহ্নিত করার জন্য একটা বিশেষ দল গঠন করা হয়েছে। ”

নির্যাতিতার পরিবার ও বন্ধুদের দাবি, ওই দুই অভিযুক্ত ধর্ষণের ভিডিও রেকর্ডিংও করে রাখে। পুলিশের কাছে গেলে সেই ভিডিও বাজারে ছেড়ে দেওয়া হবে বলেও সেই নারীকে হুমকি দেয় তারা।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*