রোববার থেকে প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা

আগামীকাল রোববার (১৯ নভেম্বর) প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী (পিইসি) পরীক্ষা শুরু হবে। দেশের সাত হাজার ২৬৭টি এবং বিদেশের ১২টি কেন্দ্রে অনুষ্ঠেয় প্রাথমিক ও ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষা চলবে ২৬ নভেম্বর পর্যন্ত। সারা দেশে মোট ৩০ লাখ ৯৬ হাজার ৭৫ জন শিক্ষার্থী এই পরীক্ষায় অংশগ্রহণ করবে।

এবার দুই হাজার প্রাথমিকে ৯৫৩ জন এবং ইবতেদায়ীতে ৩৭৯ জন ‘বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন’ পরীক্ষার্থী অংশ নেবে । এই শিক্ষার্থীদের অতিরিক্ত ২০ মিনিট সময় দেওয়া হবে।

প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে এবার থেকে পরীক্ষাকেন্দ্রে দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা পরীক্ষা শুরুর ৫ মিনিট আগে প্রশ্নপত্র সরবরাহ করবে এবং এসময় কোন পরীক্ষা কেন্দ্রে মোবাইল ব্যবহার করা যাবে না বলে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়।

বুধবার সচিবালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী মোস্তাফিজুর রহমান বলেছেন, প্রশ্নপত্র ফাঁস ঠেকাতে গত বছর থেকে দেশের ৬৪ জেলাকে বিশেষ আটটি অঞ্চলে ভাগ করে আট সেট প্রশ্ন ছাপিয়ে পিইসি পরীক্ষা নিচ্ছে সরকার। পরীক্ষার দায়িত্ব পালনে অবহেলা বা অনিয়মের ক্ষেত্রে ‘জিরো টলারেন্স’ নীতি গ্রহণ করা হবে।

ইতোমধ্যে প্রশ্নপত্র ফাঁস রোধে বিশেষ নিরাপত্তায় জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে এবং দুর্গম এলাকার ২০৪টি কেন্দ্রে বিশেষ ব্যবস্থায় প্রশ্নপত্র পাঠানো হয়েছে।

মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, পরীক্ষা শুরুর দিন বেলা ১১ টায় প্রাথমিক ও গণশিক্ষামন্ত্রী রাজধানীর মতিঝিলের আইডিয়াল সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের কেন্দ্র পরিদর্শন করবেন।

Sharing is caring!

Be the first to comment

Leave a Reply

Your email address will not be published.


*